1. rony07557@gmail.com : admin :
  2. chebotarenko.2022@mail.ru : roccobgj06 :
বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ০৬:০৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
ধর্ষণের সময় লাথি দেওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে ভেঙে ফেলল ৪ দাঁত, যৌনাঙ্গে হাত ঢুকিয়ে ছিড়ে ফেলে পায়ুপথ ভারতে গলায় ছুরি রেখে ‘জয় শ্রীরাম’ বলতে বাধ্য, রাজি না হওয়ায় মুসলিম বৃদ্ধার দাঁড়ি কেটে নিল খালিয়াজুরীতে সরকারী সম্পত্তি দখল করে গড়ে উঠেছে মার্কেট ও আবাসন প্রকল্প তিন দিন ধরে নিখোঁজ আলোচিত ইসলামী বক্তা আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনান পরিবার দিশেহারা আগামী সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের ফাইজারের ও চীনের সিনোফার্মের টিকা দেওয়া শুরু টঙ্গীতে কিশোর গ্যাংয়ের বিরোধী সাঁড়াশি অভিযান শুরু নেত্রকোনার খালিয়াজুরীতে সরকারি রাস্তা জোরপূর্বক দখল গ্রামবাসীর অভিযোগ এই বাজেট জনবান্ধব নয়, এতে মানুষের আশা- আকাঙ্ক্ষা প্রতিফলিত হয়নি রাজধানীতে নিজের শরীরে আগুন ধরিয়ে দিয়েছেন এক নারী নেত্রকোনায় বৃদ্ধের ধর্ষণে এক কিশোরী (১৫) ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা

মামলার তদন্তের অংশ হিসেবে ‘ইউএসএ টুডে’র পাঠক তথ্য চায় এফবিআই

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট সময়: শনিবার, ৫ জুন, ২০২১
  • ০ বার পঠিত
মামলার তদন্তের অংশ হিসেবে 'ইউএসএ টুডে'র পাঠক তথ্য চায় এফবিআই

এফবিআইয়ের দুই এজেন্টের হত্যাকাণ্ড নিয়ে ‘ইউএসএ টুডে’র প্রকাশিত প্রতিবেদন কতজন পাঠক পড়েছেন তাদের তালিকা চেয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থাটি। মামলার তদন্তের অংশ হিসেবে ইউএসএ টুডের কাছে পাঠকের তথ্য চায় এফবিআই।

তবে সংবাদপত্র প্রতিষ্ঠানটি এফবিআইয়ের এমন প্রস্তাব বাতিল করে দেয় এবং আবেদনটি খারিজের জন্য আদালতের দারস্থ হয়। এছাড়াও এফবিআইয়ের এমন দাবিকে ‘সংবাদপত্রের স্বাধীনতার স্পষ্ট লঙ্ঘন’ হিসেবে মনে করছে সংবাদ মাধ্যমটি। গত ফেব্রুয়ারিতে ফ্লোরিডায় এফবিআইয়ের দুই এজেন্টকে গুলি করে হত্যার খবর প্রকাশের ৩৫ মিনিটের মধ্যে যারা যারা তাতে ক্লিক করেছিল তাদের আইপি অ্যাড্রেস ও ফোন নম্বার জানাতে বলেছিল গোয়েন্দা সংস্থাটি।

খবর বিবিসির। এফবিআই তাদের তথ্য চেয়েছে কারণ কম্পিউটারের অবস্থান ও মালিককে খুঁজে বের করতে আইপি অ্যাড্রেস ব্যবহার করা হয়। ইউএসএ টুডের প্রকাশক পেরেজ ওয়াডসওয়ার্থ বলেন, ‘আমাদের ওয়েবসাইটে কারা কী পড়ে তা সরকারকে জানাতে বাধ্য করা সংবিধানের প্রথম সংশোধনীর লঙ্ঘন। এফবিআই আমাদের কাছে পাঠকের ব্যক্তিগত তথ্য চেয়েছে।

ওয়াডসওয়ার্থ আরো বলেন, যে ক্ষেত্রে সরকার সাংবাদিককে তলব করতে পারে বলে সেই ‘সীমিত ক্ষেত্র’ বিষয়ে বিচার বিভাগের যে নীতিমালা রয়েছে, এফবিআই তাও ভঙ্গ করেছে। গণমাধ্যম ও সংবাদপত্রের স্বাধীনতা রক্ষার কর্মীরা বলছেন, এটা সরকারের বিষয়ে তথ্য সংগ্রহে সাংবাদিকদের সুযোগ সীমিত করার একটি কৌশল।

২০১৩ সালে এফবিআই এপির সাংবাদিকদের দুই মাসের ফোন রেকর্ড সংগ্রহ করেছিল, যার জন্য বারাক ওবামাকে সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2021 Daily Somoy
কারিগরি সহযোগিতায় দৈনিক সময় এক্সপ্রেস.